যে ৭ খাবার শারীরিক মিলনের ইচ্ছা কমিয়ে দেয়

শারীরিক সম্পর্কের ইচ্ছা বাড়ায় এমন খাবার তালিকা অনেকেই জানেন। কিন্তু এমন অনেক খাবার আছে যা খেলে শারীরিক সম্পর্কের ইচ্ছা কমতে শুরু করে। জেনে নিন যেসব খাবারের তালিকা।



ক্যানড খাবার
বর্তমানে ক্যানড খাবারের প্রতি নির্ভরশীল হয়ে পড়ছেন কেউ কেউ। এ ধরনের খাবারে সোডিয়ামের পরিমাণ বেশি ও পটাশিয়ামের পরিমাণ কম থাকে। এই কম্বিনেশন আপনার শারীরিক মিলনের অর্গ্যানে রক্তের সঞ্চালন কমিয়ে সেগুলোকে ঝিমিয়ে পড়তে বাধ্য করে। তাই ক্যানড খাবার যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন।


অ্যালকোহল
অতিরিক্ত অ্যালকোহল সেবন আপনাকে মানসিক অবসাদের দিকে ঠেলে দেবে। পুরুষেরা বেশি অ্যালকোহলের নেশায় মজে গেলে তাদের শরীরে টেস্টোস্টেরনের মাত্রাও উল্লেখযোগ্যভাবে কমে যায়। আর এই সবগুলোই শারীরিক মিলনের ড্রাইভের মরে যাওয়ার অনুঘটক মাত্র।

চিজ
চিজ খেতে মজা লাগে নিশ্চয়ই? কিন্তু বাজারে যে প্রসেসড চিজ কিনতে পাওয়া যায় তা গরুর দুধে তৈরি হলেও তাতে মেশানো হয় নানা ধরনের গ্রোথ হরমোন এবং অ্যান্টিবায়োটিক। তাই চিজ বেশি খেলে মেয়েদের শরীরে এক ধরনের হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায়। এটি তাদের মধ্যে শারীরিক মিলনের ইচ্ছেকে মেরে ফেলে। এমনকী, নানা ধরনের শারীরিক মিলনের ডিসফাংশনও হতে পারে চিজ বেশি খেলে। তাই চিজ খেলে একটু রয়ে-সয়ে খাবেন।

কফি
কফির অসংখ্য উপকারিতা যেমন আছে, আছে অপকারিতাও। এটি আমাদের শরীরে অ্যাড্রিনাল গ্ল্যান্ডগুলিকে সক্রিয় করে নানা ধরনের স্ট্রেস হরমোনের ক্ষরণ বাড়ায়। এই ধরনের হরমোন আবার শারীরিক মিলনের হরমোন ও থাইরয়েডের ব্যালান্সে তারতম্য ঘটিয়ে মিলনের ইচ্ছা একদমই কমিয়ে দেয়।



সয়া
সয়াবিনের মধ্যে থাকা একটি উপাদান আমাদের শরীরে হরমোনাল ইমব্যালান্স তৈরির জন্য দায়ী। আপনি যদি অতিরিক্ত মাত্রায় এই খাবারটি খান, তাহলে আপনি নারীই হোন কিংবা পুরুষ, শারীরিক মিলনের ইচ্ছা কমতে বাধ্য।

পুদিনা
পুদিনা শরীর ঠান্ডা করে আর ঠান্ডা শরীরে শারীরিক মিলনের ড্রাইভ বাড়বে, এমন কথা কেউ কখনও শুনেছে? তা ছাড়া পুদিনার মেন্থল শরীরে টেস্টোস্টেরনের ক্ষরণও কমিয়ে দেয়।

কর্নফ্লেক্স
জন হার্ভি কেলগ, যিনি বিশ্ববিখ্যাত কেলগ'স কর্নফ্লেক্স তৈরি করেছিলেন, তিনি আসলে পুরুষদের শারীরিক মিলনের ড্রাইভ কমানোর জন্য এটি তৈরি করেন? কর্নফ্লেক্সে থাকা চিনি আসলে টেস্টোস্টেরনের ক্ষরণ কমিয়ে দেয়। ফলে কমে আসে শারীরিক মিলনের ড্রাইভও।

SHARE THIS

0 Comments:

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।