করোনা মোকাবিলায় দেশের সব মানুষের অ্যাকাউন্টে ১৫০০০ টাকা দেওয়ার দাবি


শুধু করোনা নয়। একসঙ্গে অনেক ভয় থাবা বসাচ্ছে ক্রমশ। খাবার, টাকা টান পড়ছে সবকিছুতেই। এই পরিস্থিতিতে টাকার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানালেন সমাজকর্মীরা।

সোশ্যাল সিকিউরিটির জন্য এই আবেদন করা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে। দেশের সব মানুষের অ্যাকাউন্টেই এই টাকা ফেলার ব্যবস্থা করার দাবি জানানো হয়েছে। অর্গানাইজড সেক্টর হোক বা আন-অর্গানাইজড, দরিদ্র হোক বা না হোক, সবার জন্যই টাকা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।



অর্থমন্ত্রীর ঘোষণা করা ১.৭ লক্ষ কোটির প্যাকেজ যথাযথ নয় বলে উল্লেখ করে তাঁরা বলেছেন, সরকারের উচিৎ করোনার পরীক্ষা বিনামূল্যে করা।
এসএসএন বা সোশ্যাল সিকিউরিটি নাউ নামে ওই সংগঠনের তরফ থেকে দেওয়া পিটিশনে লেখা হয়েছে, ‘আমরা এক অভূতপূর্ব পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছি। স্বাস্থ্য, সামাজিক, অর্থনৈতিক ক্রাইসিসের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি। রোজগার কমে যাওয়ার একটা আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।এর ফলাফল অত্যন্ত খারাপ হবে।’
৯০০ জন এই দাবিতে স্বাক্ষর করেছেন। সেখানে রয়েছে বিভিন্ন ট্রেড ইউনিয়নের প্রতিনিধিরা। রয়েছেন অর্থনীতিবিদ অরুণ কুমার, সাহিত্যিক হিরেন গোহেন, সমাজবিদ নন্দিনী সুন্দর, সতীশ দেশপান্ডে, নিবেদিতা মেনন প্রমুখ।

SHARE THIS

0 Comments:

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।